স্বামীর অতিরিক্ত ভালোবাসায় অতিষ্ঠ হয়ে তালাক চাইলেন স্ত্রী!

স্বামীর অতিরিক্ত ভালোবাসায় অতিষ্ঠ হয়ে তালাক চাইলেন স্ত্রী!

স্বামীর অতিরিক্তি ভালোবাসার কারণে জীবন ‘নরকে’ পরিণত হয়েছে অভিযোগ তুলে তালাকের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন সংযুক্ত আরব আমিরাতের (ইউএই) এক নারী।

সেই স্বামী তার স্ত্রীকে রান্না, বাড়ি পরিষ্কারসহ বিভিন্ন কাজে সহযোগিতা করেন ও ভালোবাসেন প্রচণ্ডভাবে। আর এর ফলেই জীবন ‘দমবন্ধ’ হয়ে এসেছে বলে অভিযোগ করেছেন এই নারী। খালিজ টাইমস এক প্রতিবেদনে এ খবর জানায়।

আরব আমিরাতের ফুজাইরাহ অঞ্চলের শরিয়াহ আদালতে সেই নারী অভিযোগ করেছেন, স্বামীর এত ভালোবাসা তার পক্ষে নেয়া সম্ভব না।

আদালতে স্বামী সম্পর্কে তিনি বলেন, “সে কখনোই আমার সঙ্গে ঝগড়া করে না অথবা আমার কোনো আবদার ফিরিয়ে দেয় না।”

তিনি বলেন, “তার ভালোবাসা ও অনুরাগের আতিশয্যে আমার দমবন্ধ হবার মতো অবস্থা।”

সেই স্বামী মাঝে মধ্যে তার স্ত্রীর জন্য রান্নাও করেন এবং এক বছরে বিবাহিত জীবনে তাদের মধ্যে কখনো ঝগড়াও হয়নি।

সেই স্বামী মাঝে মধ্যে তার স্ত্রীর জন্য রান্নাও করেন এবং এক বছরে বিবাহিত জীবনে তাদের মধ্যে কখনো ঝগড়াও হয়নি।

সেই নারী অভিযোগ করেন, “আমি একটি দিনের জন্য হলেও ঝগড়া করতে অধীর অপেক্ষা করেছি কিন্তু আমার রোমান্টিক স্বামীর সাথে এটা অসম্ভব। সে সবসময়েই আমাকে উপহারের বন্যায় ভাসিয়ে রাখে।””

তিনি আরও বলেন, “আমার একটা সত্যিকার আলোচনা দরকার, অথবা এমনকি ঝগড়া। এরকম নির্ভার জীবন আমার দরকার নেই।”

এদিকে তার স্বামী দাবি করেছেন তিনি ভুল কিছুও করেন নি। “আমি চাই একজন আদর্শ ও সহানুভূতিপূর্ণ স্বামী।”

তার স্ত্রী যখন তার ওজন বেড়ে যাওয়া নিয়ে কথা বলতেন তখন স্বামী কঠোর ডায়েট এবং শরীর চর্চা শুরু করতেন। তা করতে গিয়ে তিনি একবার পা ভেঙে ফেলেন।

তার স্ত্রীকে বোঝানোর জন্য তিনি আদালতের কাছে অনুরোধ করেন।

তিনি বলেন, “প্রথম বছরের বিবাহিত জীবন থেকে একটি বিয়ে সম্পর্কে বিচার করা ঠিকনয়। আর ছাড়া সবাই-ই ভুল থেকে শিক্ষা নেয়।”

আদালত এই দম্পতিকে মিটমাট করে নেওয়ার জন্য একটি সুযোগ দিতে মুলতবি ঘোষণা করেছে।

কৃতজ্ঞতায়ঃ Dhaka Tribune

Bengali Sarcasm Desk

এই ডেস্কে কখন কে বসে তার কোন ঠিক ঠিকানা নেই!

You may also like...